বশেফমুবিপ্রবি প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

প্রথমবর্ষের ওরিয়েন্টেশন
দেশের কল্যাণে ভূমিকা রাখতে শিক্ষার্থীদের প্রতি বশেফমুবিপ্রবি উপাচার্যের আহ্বান

বশেফমুবিপ্রবি, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২, সোমবার।।

জামালপুরে অবস্থিত বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেফমুবিপ্রবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথমবর্ষে ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ করে সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ছয়টি বিভাগের শ্রেণিকক্ষে পৃথকভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. সৈয়দ সামসুদ্দিন আহমেদ। এ সময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, ফিশারিজ বিভাগ, গণিত বিভাগ, ব্যবস্থাপনা বিভাগ ও সমাজকর্ম বিভাগে উপস্থিত হয়ে নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে দিক-নির্দেশনা ও অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্য দেন।

নবীন শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে স্বাগত জানিয়ে মাননীয় উপাচার্য বলেন, বিশ্বপরিমণ্ডলে নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে হলে জ্ঞান-বিজ্ঞানে পারদর্শীতা অর্জন করতে হবে। শিক্ষা ছাড়া একটি জাতি উন্নয়ন সম্ভব নয়। আর এ জন্য চাই দক্ষ ও আলোকিত মানবসম্পদ।

তরুণ শিক্ষার্থীদের সময়ের প্রতি নিষ্ঠাবান থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রদত্ত সুযোগ-সুবিধার সর্বোচ্চ সদ্ব্যবহারের আহ্বান জানান প্রফেসর ড. সৈয়দ সামসুদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, নতুন বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এই সীমাবদ্ধতার মাঝেও আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের নানা সুযোগ-সুবিধা দেয়ার চেষ্টা করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশে পৌঁছানোর রূপরেখা প্রণয়ন করেছেন। তোমরা এতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে-সেভাবে নিজেদের গড়ে তুলতে হবে। যথাসময়ে শিক্ষাজীবন শেষ করে পরিবার, সমাজ ও দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতিতে কাঙ্ক্ষিত ভূমিকা রাখতে হবে।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মাননীয় উপাচার্য বলেন, তোমরা দেশের মেধাবী শিক্ষার্থী। প্রতিযোগিতামূলক ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে এই পাবলক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছো। তোমাদের কাছে পরিবার, সমাজ ও দেশের অনেক প্রত্যাশা রয়েছে।

নিষ্ঠা ও মনযোগের সাথে পড়াশুনা করে যোগ্য ও সুনাগরিক হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলে দেশের প্রতি যথাযথ দায়িত্ব পালনে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়। এরপর তাদের বিভাগের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। পৃথক এসব অনুষ্ঠানে স্ব-স্ব বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ সভাপতিত্ব করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগ দেন বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সুশান্ত কুমার ভট্টাচার্য, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর এসএমএ হুরাইরা, প্রকল্প পরিচালক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক কর্নেল (অব.) কাজী শরীফ উদ্দিন, উপ-রেজিস্ট্রার জনাব মো. মহিউদ্দিন মোল্লা প্রমুখ।

এছাড়া সমাজকর্ম বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এএইচএম মাহবুবুর রহমান, সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মাহমুদুল আলম, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ শাহজালাল, ব্যবস্থাপনা বিভাগের জনাব এস.এম ইউসুফ আলী, ফিশারিজ বিভাগের ড. আব্দুস ছাত্তার, ইইই বিভাগের চেয়ারম্যান জনাব মো. রাশিদুল ইসলামসহ বিভাগসমূহের শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয়টি বিভাগে কোটাসহ ২০৪টি আসন রয়েছে। প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত জিএসটিভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম চালাচ্ছে বশেফমুবিপ্রবি।

বার্তা প্রেরক

জনসংযোগ কর্মকর্তা
বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
মেলান্দহ, জামালপুর-২০১২।